শনিবার, নভেম্বর ২৭, ২০২১ : ৮:১৬ পূর্বাহ্ন
সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদঃ

চাঞ্চল্যকর শিশু রাজন হত্যা-আসামি যাচাই-বাছাই ও যুক্তিতর্ক ২৫ অক্টোবর

সিলেট প্রতিনিধি : সিলেটে শিশু সামিউল আলম রাজন হত্যা মামলায় ১১ সাক্ষীর পুনঃসাক্ষ্যগ্রহণ সম্পন্ন হয়েছে। মামলার প্রধান আসামি কামরুল ইসলামের আইনজীবীর আবেদনের প্রেক্ষিতে সিলেট মহানগর দায়রা জজ আদালত বুধবার তাদের পুনঃসাক্ষ্যগ্রহণ করেন। রাজনের বাবার নিযুক্ত আইনজীবী শওকত চৌধুরী জানান, বুধবার আদালতে জালালাবাদ থানার এসআই (বরখাস্তকৃত) আমিনুল ইসলাম, রাজনের বাবা আজিজুর রহমান, মা লুবনা বেগম, আল আমিন, ইশতিয়াক আহমদ চৌধুরী, বেলাল আহমদ, কোরবান আলী, আফতাব মিয়া, বিচারক সাহেদুল করিম, বিচারক আনোয়ারুল হক ও জালালাবাদ থানার ওসি আখতার হোসেনের পুনঃসাক্ষ্যগ্রহণ করা হয়। এদিকে আদালত আগামী ২৫ অক্টোবর রাজন হত্যা মামলায় যুক্তিতর্ক উপস্থাপন, আসামি যাচাই-বাছাই ও সাফাই সাক্ষী জেরার তারিখ নির্ধারণ করেছেন বলে জানিয়েছেন সিলেট মহানগর দায়রা জজ আদালতের পিপি মফুর আলী। গত ১৫ অক্টোবর রাজন হত্যা মামলার সাক্ষ্যগ্রহণ কাজ শেষ হয়। তবে ওইদিন বিকেলে সৌদি থেকে প্রধান আসামি কামরুল ইসলামকে দেশে ফেরানোর পর গত রোববার (১৮ অক্টোবর) তাকে প্রথমবারের মতো আদালতে হাজির করা হয়। আদালতে কামরুল সাক্ষীদের পুনঃসাক্ষ্যগ্রহণের আবেদন জানায়। তবে আদালতের বিচারক আকবর হোসেন মৃধা ওইদিন তার আবেদন নামঞ্জুর করেন। পরে মঙ্গলবার ফের কামরুলের আইনজীবী আদালতে ১৫ সাক্ষীর পুনঃসাক্ষ্যগ্রহণের আবেদন জানান। বিচারক ১১ সাক্ষীর পুনঃসাক্ষ্যগ্রহণের নির্দেশ দেন। প্রসঙ্গত, গত ১৬ আগস্ট রাজন হত্যা মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা সিলেট মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের পরিদর্শক সুরঞ্জিত তালুকদার ১৩ জনকে অভিযুক্ত করে চার্জশিট দাখিল করেন। আদালত ২৪ আগস্ট চার্জশিট আমলে নেন। পরদিন, ২৫ আগস্ট পলাতক কামরুল ও শামীমের মালামাল ক্রোক করে নগরীর জালালাবাদ থানা পুলিশ। গত ৩১ আগস্ট রাজন হত্যাকা-ের মূল আসামি পলাতক কামরুল ইসলাম, তার ভাই শামীম আহমদ ও আরেক হোতা পাভেলকে পলাতক দেখিয়ে পত্রিকায় বিজ্ঞপ্তি প্রকাশের নির্দেশ দিয়েছিলেন আদালত। গত ৭ সেপ্টেম্বর রাজন হত্যা মামলা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালত থেকে মহানগর দায়রা জজ আদালতে হস্তান্তর করা হয়। গত ১৫ অক্টোবর রাজন হত্যা মামলার প্রধান আসামি সৌদিতে পলাতক কামরুল ইসলামকে দেশে ফিরিয়ে আনা হয়। গত ৮ জুলাই সিলেটের কুমারগাঁওয়ে সামিউল আলম রাজনকে নির্যাতনের মাধ্যমে হত্যা করা হয়।

এছাড়াও নিম্নের সংবাদগুলো দেখতে পারেন...

সংবাদ সম্মেলনে অভিযোগ : মন্দিরের জমি দখল নিতে পুরোহিতের বিরুদ্ধে ধর্ষণচেষ্টা মামলা

প্রভাবশালী এক আওয়ামী লীগ নেতার যোগসাজশে মন্দিরের জায়গা দখলের জন্য স্থানীয় কিছু লোক এসব ঘটনা …

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Open