সোমবার, অক্টোবর ২৫, ২০২১ : ৮:০২ পূর্বাহ্ন
সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদঃ

সুনামগঞ্জ জেলা দুই দিনের টানা বৃষ্টিতে প্লাবিত

মাসুম আহম্মদ সুনামগঞ্জ জেলা প্রতিনিধিঃ দুই দিনের টানা বৃষ্টিতে বন্যায় প্লাবিত হয়েছে সুনামঘঞ্জ জেলার পাচটি উপজেলা। সুনামগঞ্জ জেলার  পয়েন্টে সুরমা নদীর পানি বিপৎসীমার ৬৮ সে.মি উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। গত সোমবার থেকে সুনামগঞ্জ জেলার পয়েন্টে ১৯০ এবং যাদুকাটা পয়েন্টে ২৭৫ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড হয়েছে। দুই দিনের পাহাড়ী ঢলে, কুশিয়ারা নদীসহ সীমান্ত নদীগুলোর পানি বৃদ্ধি পাচ্ছে। দুই দিনের বৃষ্টির কারনে বন্যায় প্লাবিত হয়ে ১০ হাজার হেক্টর রোপা আমন তলিয়ে গেছে। জানা যায়, রবিবার থেকে সুনামগঞ্জ জেলায় এক টানা বৃষ্টিপাত হচ্ছে। বৃষ্টিপাত ও পাহাড়ি ঢলে বন্যায় প্লাবিত হয়ে  সুনামগঞ্জ সদর, দোয়ারাবাজার, বিশ্বম্ভরপুর, তাহিরপুর ও জগন্নাথপুর উপজেলার মানুষ পড়েছে চরম ভোগান্তীতে। এসব উপজেলার রোপা আমন ও বীজতলা পানিতে তলিয়ে গেছে। জেলা শহরের মাছ বাজার, সাহেববাড়ি ঘাট, পশ্চিম তেঘরিয়া পানিতে তলিয়ে গেছে। দোয়ারাবাজার, বিশ্বম্ভরপুর, তাহিরপুর, সুনামগঞ্জ সড়ক পানিতে তলিয়ে যাওয়ায় যান চলাচল বিঘিœত হচ্ছে। জগন্নাথপুর উপজেলার তিনটি ইউনিয়ন বন্যায় প্লাবিত হওয়ায় জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত স্থানীয় সরকারের এক সভায় উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান ত্রান সহায়তার আহ্বান জানিয়েছেন। সুনামগঞ্জ পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. আফসর আহমদ বলেন, পাহাড়ি ঢল ও বর্ষণে সুনামগঞ্জের বিভিন্ন নদনদীতে পানি বৃদ্ধি পাচ্ছে। বন্যায় প্লাবিত হচ্ছে নি¤œাঞ্চল। পানি বৃদ্ধি অব্যাহত থাকলে বন্যা পরিস্থিতির আশংকা রয়েছে বলে তিনি জানান। সুনামগঞ্জ জেলা প্রশাসক শেখ রফিকুল ইসলাম বলেন, এখনো বন্যা পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়নি। প্রশাসন বন্যা পরিস্থিতি মোকাবেলায় প্রস্তুত রয়েছে। বন্যাঝূকিপূর্ণ এলাকার উপজেলা নির্বাহী অফিসারদের প্রস্তুত থাকতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

এছাড়াও নিম্নের সংবাদগুলো দেখতে পারেন...

সংবাদ সম্মেলনে অভিযোগ : মন্দিরের জমি দখল নিতে পুরোহিতের বিরুদ্ধে ধর্ষণচেষ্টা মামলা

প্রভাবশালী এক আওয়ামী লীগ নেতার যোগসাজশে মন্দিরের জায়গা দখলের জন্য স্থানীয় কিছু লোক এসব ঘটনা …

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Open