রবিবার, অক্টোবর ২৫, ২০২০ : ৩:১৬ পূর্বাহ্ন
সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদঃ

পেট্রল পাম্প ভাঙচুরের ঘটনায় ফেঁসে গেছেন ফলিক- মামলা শুক্রবার থেকে ধর্মঘট

9743_b8ডেস্ক রিপোর্ট :: দক্ষিণ সুরমার পেট্রল পাম্প ভাঙচুরের ঘটনায় ফেঁসে গেছেন শ্রমিক ইউনিয়নের কেন্দ্রীয় সহসভাপতি, বিভাগ ও জেলার সভাপতি  সেলিম আহমদ ফলিক। তাঁকে প্রধান আসামি করে ওই পাম্প কর্তৃপক্ষের দায়ের করা মামলা অবশেষে রেকর্ড করেছে দক্ষিণ সুরমা থানা পুলিশ। তবে ফলিকসহ শ্রমিক নেতাদের বিরুদ্ধে দায়ের করা মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে ঐক্যবদ্ধ হয়ে মাঠে নেমেছেন সিলেটের মালিক ও শ্রমিকরা।
গত সোমবার দক্ষিণ সুরমার একটি পাম্পে হামলা ও ভাঙচুরের ঘটনা ঘটে। পরদিন মঙ্গলবার দিনভর ধর্মঘট পালন করে সিলেটের ১৬৮টি পেট্রল ও সিএিনজি ফিলিং স্টেশন। ধর্মঘটের ডাক দেয় পেট্রল পাশ্প ওনার্স এসোসিয়েশন। এরপরই দাপটবাজ পরিবহন নেতা ফলিকসহ কয়েকজর শ্রমিক নেতাকে আসামি করতে বাধ্য হয় পুলিশ। কারণ পুলিশ পাম্প কর্তৃপক্ষকে বলেছিল, ফলিককে আসামি করা যাবে না। কারণ ফলিক হামলার সময় ঘটনাস্থলেই ছিলেন না। কিন্তু ধর্মঘটের কারণে অবশেষে ফলিককেও আসামি করা হয়।
এদিকে, ফলিককে আসামি করায় সিলেটে শুক্রবার থেকে সব ধরণের পরিবহন ধর্মঘট ডাক দিয়েছে পরিবহন মালিক ও শ্রমিকদের সবকটি সংগঠন। বুধবার বেলা ১টায় সিলেটের দক্ষিণ সুরমার কেন্দ্রীয় বাসটার্মিনালে কদমতলী বাসটার্মিনালে পরিবহন মালিক ও শ্রমিক আয়োজিত সমাবেশ থেকে এ কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়। এর আগে সকাল ১১টায় একই দাবিতে সিলেট জেলা প্রশাসকের কাছে স্বারকলিপি দেন মালিক ও শ্রমিক নেতারা।
দুপুরে অনুষ্ঠিত সমাবেশে বক্তারা বলেন, দক্ষিণ সুরমার সাউথ সুরমা ফিলিং স্টেশনে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে জেলা সড়ক পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি সেলিম আহমদ ফলিকসহ অন্যান্য নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে থানায় মামলা হয়েছে। সম্পূর্ণ মিথ্যা ও কাল্পনিক অভিযোগ এনে এ মামলা দিয়ে শ্রমিকদের হয়রানি করার চেষ্টা চলছে। এ মামলা আজ বৃহস্পতিবারের মধ্যে প্রত্যাহার করা না হলে আগামিকাল শুক্রবার থেকে সিলেট বিভাগে অনির্দিষ্টকালের জন্য পরিবহন ধর্মঘট পালন করবে সব ধরণের পরিবহন মালিক শ্রমিকরা।
সিলেট জেলা পরিবহন মালিক সমিতির সভাপতি জমির আহমদের সভাপতিত্বে ও জেলা সড়ক পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়নের কার্যকরী সভাপতি তেরা মিয়ার পরিচালনায় সভায় ক্তব্য রাখেন, জেলা সড়ক পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি সেলিম আহমদ ফলিক, সাধারণ সম্পাদক রকিব উদ্দিন, শ্রমিক নেতা আবদুল গফুর, আনিসুর রহমান, রুনু মিয়া, মো. প্রমুখ।
সভাপতির বক্তব্যে জমির আহমদ সিলেটের পাম্প ও ফিলিং স্টেশন থেকে জ্বালানী সংগ্রহ না করতে পরিবহন শ্রমিকদের প্রতি আহ্বান জানান।
এর আগে সকাল ১১ টায় দুইদফা দাবিতে সিলেটের জেলা প্রশাসকের কাছে স্মারকলিপি দেন পরিবহন মালিক ও শ্রমিকরা। দাবিগুলো হলো, শ্রমিকদের পক্ষে দায়েরকৃত মামলার আসামিদের অবিলম্বে গ্রেফতার ও সাউথ সুরমা ফিলিং স্টেশনের দায়েরকৃত মামলা প্রত্যাহার।

এছাড়াও নিম্নের সংবাদগুলো দেখতে পারেন...

সেই রাবি শিক্ষকের বিরুদ্ধে ছাত্রীর যৌন হয়রানির অভিযোগ

আত্মহত্যা’ করা রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক আকতার জাহান জলির সাবেক …

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Open