সোমবার, অক্টোবর ২৬, ২০২০ : ১:৫৬ অপরাহ্ন
সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদঃ

শাবির প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে বর্ণিল র‌্যালি

SUST-1শাবি প্রতিনিধি : বর্ণাঢ্য আনন্দর‌্যালী আয়োজনের মধ্য দিয়ে পালিত হয়েছে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ২৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী। শনিবার সকাল ১১টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো.আমিনুল হক ভুইয়ার নের্তৃত্বে আনন্দ র‌্যালীটি প্রশাসনিক ভবন থেকে শুরু হয়ে ক্যাম্পাসের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিন করে শেখ ওয়াজেদ মিয়া আই.আই.সি.টি ভবনের সামনে এসে সমাবেশে মিলিত হয়। পরে কেক কেটে দিবসটির আনন্দ ভাগাভাগি করে নেয় শাবিপ্রবি পরিবার। এছাড়া বিশ্ববিদ্যালয় দিবসে বিভিন্ন সাংস্কৃতিক সংগঠন আনন্দ অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছে। র‌্যালিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র-ছাত্রী, শিক্ষক, কর্মকর্তা ও কর্মচারীবৃন্দ অংশগ্রহণ করে।
র‌্যালি শেষে ড. মো. ওয়াজেদ মিয়া আইআইসিটি ভবনের সম্মখে ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মো. আমিনুল হক ভূইয়া সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে সকলকে বিশ্ববিদ্যালয় দিবস ও ১লা ফাল্গুনের শুভেচ্ছা জানান এবং বিশ্ববিদ্যালয়কে আরো সামনে এগিয়ে নিতে সকলের সহযোগিতা কামনা করেন। তিনি বলেন, আজকের এ দিনে উপস্থিত অনেকেই ৫০ বছর পূর্তিতে এ বিশ্ববিদ্যালয়ে থাকবেন না। কিন্তু বিশ্ববিদ্যালয় যদি শিক্ষা ও গবেষণায় সামনে অগ্রসর হয় তখন তারা গর্ববোধ করবেন। তাই আজকের এ প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীকে আমাদের অঙ্গীকারবদ্ধ হতে হবে যাতে আমরা সকলে মিলে শাবিপ্রবিকে বিশ্বের অন্যতম শ্রেষ্ঠ উচ্চশিক্ষা প্রতিষ্ঠানে পরিণত করতে পারি।
পরে ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মো. আমিনুল হক ভূইয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের ২৫তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীর কেক কাটেন। এছাড়া সংক্ষিপ্ত বক্তব্য রাখেন বিশ্ববিদ্যালয়ের বিশ্ববিদ্যালয় দিবস উদযাপন কমিটির সভাপতি প্রফেসর ড. নিয়াজ আহম্মেদ। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপন কমিটির সদস্য সচিব রেজিস্ট্রার মুহাম্মদ ইশফাকুল হোসেন।
এসময় বিভিন্ন অনুষদের ডিন, ছাত্র উপদেশ ও নির্দেশনা পরিচালক, বিভাগীয় প্রধান. ভারপ্রাপ্ত প্রক্টর ও বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষক, ছাত্র-ছাত্রী, কর্মকর্তা ও কর্মচারীবৃন্দ সকল কর্মসূচীতে অংশগ্রহণ করেন।
উল্লেখ্য, দেশের প্রথম বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় হিসেবে ১৯৯১ সালের ১৩ই ফেব্রুয়ারি ৩টি বিভাগের ১৩ জন শিক্ষক ও ১২০ জন শিক্ষার্থী নিয়ে ৩২০ একর জায়গায় আনুষ্ঠানিকভাবে বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক কার্যক্রম শুরু। বর্তমানে বিশ্ববিদ্যালয়ের ২৬টি বিভাগে প্রায় ১০ হাজার শিক্ষার্থী রয়েছে।তবে দেশের প্রথম বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় হিসেবে ডিজিটাল পদ্ধতিতে ভর্তি কার্যক্রম ও পুরো ক্যাম্পাসে ওয়াইফাই নেটওয়ার্ক সহ আরো বেশ কিছু ক্ষেত্রে সফলতা থাকলেও পথচলার ২৫ বছরে মহাপরিকল্পনা বাস্তবায়িত হয়েছে অর্ধেকেরও কম।

এছাড়াও নিম্নের সংবাদগুলো দেখতে পারেন...

এবার থেকেই অষ্টম শ্রেণিতে ‘প্রাথমিক সমাপনী’

নিউজ ডেস্ক : পঞ্চম শ্রেণিতে প্রাথমিক সমাপনী পরীক্ষা এবারই তুলে দেয়া হচ্ছে। ফলে পঞ্চম শ্রেণিতে …

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Open