বৃহস্পতিবার, অক্টোবর ২৯, ২০২০ : ১০:৩৪ অপরাহ্ন
সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদঃ

“দুই বউ বাধ্যতামূলক” খবরটি গুজব : এরিট্রিয়া সরকার

image_100250আন্তর্জাতিক ডেস্ক : “এরিট্রিয়ায় সব পুরুষের অন্তত দুটো বিয়ে করতে হবে” এমন খবর সম্প্রতি বিশ্বের বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশ হলেও তা গুজব বলে দাবি করেছে দেশটির সরকার।ওই ফতোয়ায় হয়েছিল, দুই বিয়ের নির্দেশ অমান্য করলেই যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ড। এমনকি কোনো স্ত্রী যদি তার স্বামীকে দ্বিতীয় বিয়ে করতে বাধা দেন, শাস্তি হবে তারও।
এই ফতোয়াকে সাফ গুজব বলে জানিয়ে ওই দেশের সরকার বলেছে, পুরুষদের বাধ্যতামূলক পলিগ্যামিতে (দুই বিয়ে) সরকারি স্বীকৃতির খবর সম্পূর্ণ মিথ্যা, নিছক গুজব।
তবে দুই বিয়ের বাধ্যবাদকতা নিয়ে প্রথম খবরটি প্রকাশিত হয় কেনিয়ার একটি নিউজ ওয়েবসাইট ‘ক্রেজি মনডে’-তে। এই ওয়েবসাইটটি ‘স্ক্যান্ডাল’ এবং ‘গসিপ’ খবর প্রকাশের জন্যই ‘বিখ্যাত’।
সংবাদমাধ্যমকে এক সরকারি কর্মকর্তা জানান, এমনকি আসমারা (এরিট্রিয়ার রাজধানী)-র রাস্তার এক পাগলও জানে এই খবর সম্পূর্ণ মিথ্যে।
এরিট্রিয়ার তথ্য মন্ত্রী টুইট করে জানান, যেভাবে কিছু মিডিয়া এই চরম মিথ্যে ছড়িয়েছে তা রীতিমত আতঙ্কের। মনে হচ্ছে, কোনো অশুভ শক্তি এসব ছড়িয়ে উদ্দেশ্য প্রণোদিতভাবে এরিট্রিয়ার বদনাম করতে চাইছে।
আফ্রিকার ছোট্ট দেশ এরিট্রিয়ার জনসংখ্যা চৌষট্টি লাখের কিছু কম। এর এক দিকে সুদান আর ইথিওপিয়া, এক দিকে জিবুটি, এক দিকে লোহিত সাগর। ইথিওপিয়ার থেকে আলাদা হয়ে স্বাধীন এরিট্রিয়ার জন্ম হয় ১৯৯৩ সালে।

এছাড়াও নিম্নের সংবাদগুলো দেখতে পারেন...

চীনে টর্নেডো-শিলাবৃষ্টিতে ৯৮ জনের মৃত্যু

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : চীনের পূর্বাঞ্চলীয় জিয়াংসু প্রদেশে টর্নেডো ও শিলাবৃষ্টির আঘাতে কমপক্ষে ৯৮ জনের মৃত্যু …

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Open