বুধবার, জুন ২৯, ২০২২ : ৭:২২ অপরাহ্ন
সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদঃ

অবৈধ গ্যাস সংগ্রহকারী চক্রের ১৫০টি সিলিন্ডারসহ কাভার্ডভ্যান আটক

IMG_3208স্টাফ রিপোর্টার: সিলেটে অবৈধভাবে গ্যাস সংগ্রহকারী চক্রের একটি কাভার্ডভ্যানসহ ১৫০টি গ্যাস সিলিন্ডার আটক করে পুলিশে দিয়েছেন সিলেট বিভাগীয় সিএনজি ফিলিং ষ্টেশন এন্ড কনভার্শন ওয়ার্কশপ ওনার্স এসোসিয়েশনের নেতৃবৃন্দ। গতকাল সোমবার ভোরে দক্ষিণ সুরমার সাউথ সুরমা সিএনজি ফিলিং ষ্টেশন থেকে গ্যাস সিলিন্ডারসহ ওই কাভার্ডভ্যানটি আটক করা হয়। এ সময় গাড়ি চালকসহ চুরাই চক্রের সদস্যরা পালিয়ে যায়।
সাউথ সুরমা সিএনজি ফিলিং ষ্টেশনের ম্যানেজার নুরুল হক জানান, গত রোববার (দিবাগত) রাত ১টার দিকে ওই কাভার্ডভ্যানটি সিএনজি ফিলিং ষ্টেশনে আসে। যার নং ঢাকা মেট্রো-ট-১৩-২০৩৫। কভার্ডভ্যানটি খুলে প্রায় ১৫০টি গ্যাস সিলিন্ডারে গ্যাস নেওয়ার জন্যে বলে। কিন্তু তাদের কথা বর্তায় কর্মচারীদের সন্দেহ হলে তাৎক্ষনিক ফিলিং ষ্টেশনের ম্যানেজারকে অবগত করা হয়। ম্যানেজার তাদের কাছে সিলিন্ডারে করে গ্যাস দেওয়ার মতো প্রয়োজনীয় কাগজপত্রসহ নানা প্রমানাদি চাইলে তারা দেখাতে পারেনি। এক পর্যায়ে চালকসহ সহযোগীরা পালিয়ে যায়। তাৎক্ষনিক ম্যানেজার নুরুল হক সিএনজি ফিলিং ষ্টেশন এন্ড কনভার্শন ওয়ার্কশপ ওনার্স এসোসিয়েশনের সভাপতি জুবায়ের আহমদ চৌধুরী, সিনিয়র সহ সভাপতি আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ, সাধারণ সম্পাদক আমিরুজ্জামান চৌধুরী ও সহ সাধারণ সম্পাদক হুমায়ুন আহমদসহ নেতৃবৃন্দকে অবগত করলে তারা ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন।
নেতৃবৃন্দ বিষয়টি যাচাই বাচাই করে দক্ষিণ সুরমা থানা পুলিশের উপ পুলিশ কমিশনার ইকবাল হোসেনকে অবগত করলে তিনি ঘটনাস্থলে এসে গ্যাস সিলিন্ডারসহ গাড়িটি জব্দ করেন। গতকাল সোমবার বিকেলে এসোসিয়েশনের নেতৃবৃন্দ থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দিয়ে সিলিন্ডারসহ গাড়িটি হস্তান্তর করেন।
সিএনজি ফিলিং ষ্টেশনের ব্যবসায়ীরা জানান, কাভার্ডভ্যানের মাধ্যমে গ্যাস সিলিন্ডারে গ্যাস ভরে সুনামগঞ্জ, জগন্নাথপুরসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে গ্যাস সিলিন্ডার বিক্রি করছে একটি চক্র। যা সম্পূর্ণ অন্যায় ও আইনগত দন্ডনীয় অপরাধ। ওই চক্রটি অল্প গ্যাস তাদের সিলিন্ডারে ভরে অধিক মূল্যে বিক্রি করে মানুষের সাথে প্রতারণাও করছে। পাশাপাশি তা অত্যান্ত ঝুঁিকপূর্ণও। যেকোন সময় বড় ধরনের বিস্ফুরণ ঘটে হতাহতের ঘটনা ঘটতে পারে। তাছাড়া ওপেন সিলিন্ডারে গ্যাস ভরার কোন নিয়ম নেই। তবে কাভার্ডভ্যানে গাড়ির মালিক আব্দুল জব্বার লেখা থাকলেও সঠিক কোন ঠিকানা কিংবা পরিচয় পাওয়া যাচ্ছে না। পাশাপাশি ওই চক্রের নেপথ্যে থাকা সিন্ডিকের সন্ধানও এখনো পাওয়া যায়নি। তবে পুলিশ গুরুত্বসহকারে বিষয়টি তদন্ত করলে থলের বিড়াল বেড়িয়ে আসবে বলে আমাদের বিশ্বাস।
এ উপস্থিত ছিলেন, এসোসিয়েশনের সহ সভাপতি আব্দুল হান্নান, বীর মুক্তিযোদ্ধা মুজিবুর রহমান, কোষাধ্যক্ষ ফয়েজ উদ্দিন আহমদ, সাংগঠনিক সম্পাদক সুব্রথধর বাপ্পি, সহ সাংগঠনিক সম্পাদক আলী আফসার মোহাম্মদ ফাহিম, কার্যকরী সদস্য জুন্নুন মাহমুদ খান, হাজী ইউসুফ, সৈয়দ সাইফুল আলম, সজওয়ান আহমদ, মশিউর রেজা চৌধুরী, শের আলী হেলাল চৌধুরী প্রমূখ। এ ব্যাপারে দক্ষিণ সুরমা থানার উপ পুলিশ কমিশনার ইকবাল হোসেন ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, ১৫০টি গ্যাস সিলিন্ডারসহ কাভার্ডভ্যানটি গতকাল সোমবার বিকেলে জব্দ করে থানায় নিয়ে আসা হয়েছে। তবে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

এছাড়াও নিম্নের সংবাদগুলো দেখতে পারেন...

সংবাদ সম্মেলনে অভিযোগ : মন্দিরের জমি দখল নিতে পুরোহিতের বিরুদ্ধে ধর্ষণচেষ্টা মামলা

প্রভাবশালী এক আওয়ামী লীগ নেতার যোগসাজশে মন্দিরের জায়গা দখলের জন্য স্থানীয় কিছু লোক এসব ঘটনা …

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

Open