শনিবার, জানুয়ারী ২৩, ২০২১ : ১০:৩৩ পূর্বাহ্ন
সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদঃ

সিলেটে প্রধানমন্ত্রীর জনসভাকে জনসমুদ্রে পরিণত করতে হবে: কেন্দ্রীয় সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক

IMG_2507-copy1স্টাফ রিপোর্টার:: বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সভাপতি সাইফুর রহমান সোহাগ বলেছেন, ২১ জানুয়ারি সিলেটে অনুষ্ঠিতব্য প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের সভানেত্রী শেখ হাসিনার জনসভাকে জনসমূদ্রে পরিণত করতে সিলেট বিভাগের ছাত্রলীগের সকল নেতাকর্মীদের সক্রিয় ভূমিকা রাখতে হবে। জনসভার শান্তি শৃংখলা বজায় রাখতে ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদেরকে প্রহরীর ভূমিকা রাখতে হবে।

ছাত্রলীগ সভাপতি আরও বলেন, সিলেটের জনসাধারণ ও এ অঞ্চলের ছাত্রলীগ নেতাকর্মীর প্রতি বঙ্গবন্ধু কন্যা, প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার বিশেষ দৃষ্টি রয়েছে। যে কারণে যুক্তরাজ্য থেকে ফেরার পথে প্রতিবারই সিলেট হয়ে ঢাকায় যান প্রধানমন্ত্রী। সোহাগ বলেন, সিলেটের ছেলে এসএম জাকির হোসাইন কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক। সে হিসেবে সাধারণ সম্পাদকের ভাবমুর্তি রক্ষায় ছাত্রলীগকে সুশৃঙ্খলভাবে ২১ জানুয়ারী প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার জনসভাকে সফল করতে হবে। ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে সোহাগ বলেন, ছাত্রলীগের কোনো নেতকর্মীর বিরুদ্ধে অভিযোগ বা দুর্নাম সহ্য করা হবে না। কারো অপকর্মের ভার ছাত্রলীগ বহন করবে না।

শনিবার সন্ধ্যায় জেলা পরিষদ মিলনায়তনে সিলেট জেলা ও মহানগর ছাত্রলীগের বর্ধিত সভায় উদ্বোধকের বক্তব্যে তিনি একথা বলেন। জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি শাহরিয়ার আলম সামাদের সভাপতিত্বে, জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক এম রায়হান আহমদ ও মহানগর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল আলিম তুষারের যৌথ পরিচালনায় বর্ধিত সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক এডভোকেট মিছবাহ উদ্দিন সিরাজ। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, সিলেট মহানগর আওয়ামীলীগের সভাপতি সাবেক মেয়র বদর উদ্দিন আহমদ কামরান, সাধারণ সম্পাদক আসাদ উদ্দিন, শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক কাউন্সিলর আজাদুর রহমান আজাদ, সিলেট মহানগর ছাত্রলীগের সাবেক আহবায়ক হাবিবুর রহমান সেলিম।

প্রধান বক্তার বক্তব্যে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক এসএম জাকির হোসাইন বলেন, ২০১৬ সালে সিলেটে প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার প্রথম জনসভা। এই জনসভা সফল করার মাধ্যমে দলীয় সভানেত্রীর কাছে সিলেট ছাত্রলীগের ভাবমুর্তির প্রমাণ দিতে হবে।

তিনি আরও বলেন, ২১ জানুয়ারি প্রধানমন্ত্রীর সিলেট সফর সফল করতে ছাত্রলীগের সকল নেতকর্মীকে একযোগে কাজ করতে হবে। তিনি বলেন, ছাত্রলীগ একটি ঐতিহ্যবাহী সংগঠন। সংগঠনের সুনাম যাতে ক্ষুন্ন না হয় সেদিকে সকলকে লক্ষ্য রেখে কাজ করতে হবে।

‘সিলেটে প্রধানমন্ত্রীর জনসভা সফল করার দায়িত্ব ছাত্রলীগের’ বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট মিসবাহ উদ্দিন সিরাজ। প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি বলেন, ‘সিলেট ছাত্রলীগকে কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক উপহার দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। যে কারণে তাঁর অনুষ্ঠান সফল করার দায়িত্ব ছাত্রলীগের ওপরই বর্তায়।’

মিসবাহ উদ্দিন সিরাজ আরও বলেন, ‘অতীতে আওয়ামী লীগের সকল সভা-সমাবেশ ছাত্রলীগই সফল করেছে। এবার প্রধানমন্ত্রীর অনুষ্ঠান সফল করে এই সুনাম অক্ষুন্ন রাখতে হবে।’ ‘২১ জানুযারী দুপুর ১২টার আগে কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদকের নেতৃত্বে ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের আলীয়া মাদরাসা মাঠে অগ্রবর্তী দল হিসেবে উপস্থিত থাকার আহ্বান জানান তিনি।’

বক্তব্য রাখেন যুক্তরাজ্য ছাত্রলীগের সভাপতি তামিম আহমদ, সিলেট মহানগর ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি রাহাত তরফদার, বর্তমান সভাপতি আব্দুল বাছিত রুম্মান, সিলেট জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক এম. রায়হান চৌধুরী, সুনামগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ফজলে রাব্বী স্মরণ, সাধারণ সম্পাদক রফিক আহমদ চৌধুরী, মৌলভীবাজার জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি সাইফুর রহমান রনি, সাধারন সম্পাদক আসাদুজ্জামান রনি, হবিগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি রাজ চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মুকিত, শাবিপ্রবি ছাত্রলীগের সভাপতি সঞ্জীবন চক্রবর্তী পার্থ, সাধারণ সম্পাদক ইমরান খান, কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ সভাপতি শামিম মুল্লা, সাধারণ সম্পাদক ঋত্বিক দেব প্রমুখ।
এছাড়া সভায় সিলেট বিভাগের জেলা ও উপজেলা এবং পৌরসভা ছাত্রলীগের প্রতিটি ইউনিটের সভাপতি-সাধারণ সম্পাদকসহ বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।
বর্ধিত সভায় সিলেট বিভাগের বিভিন্ন জেলা ও সিলেট জেলা ও মহানগরের সভাপতি-সেক্রেটারীরা প্রধানমন্ত্রীর জনসভাকে জনসমুদ্রে পরিণত করতে তাদের নিজস্ব জেলা থেকে নেতা-কর্মীদের উপস্থিতির প্রতিশ্রুতি দেন।

সুনামগঞ্জ জেলা থেকে ১ হাজার, হবিগঞ্জ ও মৌলভীবাজার থেকে ১ হাজার করে ও সিলেট জেলা ও মহানগর থেকে ১০ হাজার ছাত্রলীগ নেতাকর্মীর উপস্থিত করার প্রতিশ্রুতি দেন সংশ্লিষ্ট জেলা ও মহানগরের সভাপতি-সাধারণ সম্পাদক।

এর আগে গতকাল বেলা ২টা ১০ মিনিটে ঢাকা থেকে বিমানযোগে সিলেট এমএজি ওসমানী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে এসে পৌঁছেন বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদের সভাপতি সাইফুর রহমান সোহাগ ও সাধারণ সম্পাদক এস এম জাকির হোসাইন। সেখানে সিলেট জেলা ও মহানগর ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা সোহাগ-জাকিরকে ফুল দিয়ে সংবর্ধনা জানান। পরে ওসামনী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে মোটরসাইকেল শোভাযাত্রা করে নগরে এসে পৌছান। শহরে পৌছেই কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সভাপতি-সাধারণ সম্পাদক প্রথমে হযরত-শাহজালাল ও শাহরাপন (রহ) মাজার জিয়ার করেন। এরপর মধ্যাহ্নভোজ শেষে জেলা পরিষদ মিলনায়তনে ছাত্রলীগের বর্ধিত সভায় যোগ দেন।

এছাড়াও নিম্নের সংবাদগুলো দেখতে পারেন...

বিশ্বনাথে ধর্ষণের অভিযোগে ইউপি মেম্বার গ্রেফতার

সিলেটের বিশ্বনাথে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে তরুণীকে ধর্ষণ করার অভিযোগে উপজেলার দৌলতপুর ইউপির ১নং ওয়ার্ডে মেম্বার …

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Open