রবিবার, জানুয়ারী ১৭, ২০২১ : ৭:১৭ পূর্বাহ্ন
সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদঃ

‘দুর্নীতির প্রধান শত্রু ডিজিটাল সিস্টেম’-মো.মঈন উদ্দিন

ICT20160113124419স্টাফ রিপোর্টার :: মন্ত্রীপরিষদ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব মো. মঈন উদ্দিন বলেছেন, দুর্নীতির প্রধান শত্রু হচ্ছে ডিজিটাল সিস্টেম। তাই যতো দ্রুত সবক্ষেত্র ডিজিটালাইজড করা যাবে, দুর্নীতি প্রতিরোধ ততো দ্রুত সম্ভব হবে। গতকাল বুধবার দুপুরে সিলেট নগরীর রিকাবীবাজারে জেলা স্টেডিয়ামের মোহাম্মদ আলী জিমনেসিয়ামে দু’দিনব্যাপী ডিজিটাল উদ্ভাবনী মেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এ কথা বলেন।
ডিজিটাল সিস্টেমে নতুন প্রজন্ম আরও গতিশীল হচ্ছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, নতুন প্রজন্ম সময়কে যথাযথভাবে কাজে লাগাচ্ছে। ফলে এই প্রজন্ম দেশকে অনেক দূর এগিয়ে নিতে পারবে। আমাদের লক্ষ্য হচ্ছে, ২০২১ সালের মধ্যে দেশকে মধ্যআয়ে উন্নীত করা। এজন্য মাথাপিছু আয় চার থেকে পাঁচ হাজার মার্কিন ডলারে নিতে হবে। এটি একটি চ্যালেঞ্জ। তবে সর্বক্ষেত্রে যেভাবে অগ্রগতী হচ্ছে এর ফলে ভিশন ২০২১ যথাসময়ে বাস্তবায়িত হবে।
সিলেটের জেলা প্রশাসক মো. জয়নাল আবেদিনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, প্রধানমন্ত্রীর এটুআই প্রোগ্রামের সমন্বয়ক মানিক মাহমুদ, সিলেটের সিভিল সার্জন মো. আমিনুল ইসলাম, ভূমি মন্ত্রণালয়ের উপসচিব মাহবুবুর রহমান ভূঁইয়া, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের উপপরিচালক ড. নুরুল ইসলাম, সিলেটের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার নুরুল ইসলাম প্রমুখ। আইসিটি ডিভিশনের প্রোগ্রামার ও সেন্টার ইনচার্জ মধু সুদন দত্তরে সঞ্চালনায় অনুষ্টানে আরো বক্তব্য রাখেন সিলেট জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক মাহি উদ্দিন আহমদ সেলিম।
সভাপতির বক্তব্যে সিলেটের জেলা প্রশাসক জয়নাল আবেদীন বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী যখন ডিজিটাল বাংলাদেশের কথা বলেছিলেন তখন অনেকেই একে বিদ্রুপ করেছিলেন। কিন্তু এখন ডিজিটাল বাংলাদেশ এখন চরম বাস্তবতা। এখন গ্রামের মানুষ ফটোষ্টেট সহ বিভিন্ন সেবা গ্রামে বসেই পাচ্ছে। তিনি বলেন, আজকে ডিজিটাল মেলা করার অনেকগুলো বিষয় রয়ছে। এখানে অনেক রুট লেবেলের ছাত্রছাত্রীরা অংশগ্রহণ করছে। সল্প সময়ে কিভাবে বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে তার প্রদর্শনীই এই ডিজিটাল উদ্ভাবনী মেলা।
প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের একসেস টু ইনফরমেশন (এটুআই) প্রোগ্রাম ও সিলেট জেলা প্রশাসন আয়োজিত মেলায় চারটি প্যাভিলিয়নে ই-সেবা, শিক্ষা, ই-কমার্স, তরুণ উদ্ভাবক-প্রদর্শনী ও প্রতিযোগিতা ক্যাটাগরিতে মোট ৪২টি স্টল রয়েছে। গতকাল মেলায় ৫ জন গ্রাহকদের মধ্যে পর্চা হস্তান্তর করা হয়। একই সাথে যারা আজকে পর্চার জন্য আবেদন করবেন তাদেরকে আজ মেলার মধ্যেই পর্চা হস্তান্তর করা হবে।
দু’দিনব্যাপি মেলা প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে সন্ধ্যা ৭টা পর্যন্ত সকলের জন্য উন্মুক্ত থাকবে। এবারের বিশেষ আয়োজনে থাকছে ১০টি সামাজিক সমস্যা সমাধানের জন্য ‘সলভ-এ-থোন’ প্রতিযোগিতা। বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া শিক্ষার্থীরা এতে অংশগ্রহণ করবে। পাশাপাশি মেলা চলাকালে ই-কমার্স ও আউটসোর্সিং বিষয়ক দু’টি সেমিনার অনুষ্ঠিত হবে।
সরকারি ই-সেবাসহ প্যাভিলিয়ন থেকেই পর্চা আবেদন গ্রহণ ও ডেলিভারি, ব্যাংক-বীমাসহ সব আর্থিক প্রতিষ্ঠানের ই-সেবা, বিআরটিএ’র অনলাইন লাইসেন্স কার্যক্রম, পাসপোর্ট আবেদন গ্রহণ, ইটিআইএন রেজিস্ট্রেশন, ডিজিটাল সেন্টার স্টল থেকে মোবাইল ব্যাংকিং, এজেন্ট ব্যাংকিংসহ ১০৭টি সেবা পাবেন গ্রাহক। ডাক বিভাগের স্টলে তাদের অনলাইন কার্যক্রম প্রদর্শিত হবে।
এছাড়া মেলায় থাকছে অনলাইন কৃষি সেবা, মাদকবিরোধী প্রচারণা। শিক্ষা প্যাভিলিয়নে থাকছে সায়েন্স কিটবক্স, শিক্ষার উদ্ভাবনী উপকরণ, শিক্ষা বিষয়ক মুক্তপাঠ, মাল্টিমিডিয়া ক্লাস, শিক্ষা বাতায়ন।
অনলাইনে পণ্য ক্রয়-বিক্রয়ের সুযোগ সৃষ্টি করতে ই-কমার্স প্যাভিলিয়নে দেশের শীর্ষস্থানীয় ই-কমার্স প্রতিষ্ঠানগুলো অংশ নিয়েছে। মেলায় আগত দর্শনার্থীদের মধ্য থেকে অনলাইন র‌্যাফেল ড্র’র মাধ্যমে তিনজনকে পুরস্কৃত করা হবে।

এছাড়াও নিম্নের সংবাদগুলো দেখতে পারেন...

সেই রাবি শিক্ষকের বিরুদ্ধে ছাত্রীর যৌন হয়রানির অভিযোগ

আত্মহত্যা’ করা রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক আকতার জাহান জলির সাবেক …

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Open