বুধবার, নভেম্বর ২৫, ২০২০ : ১১:১৩ পূর্বাহ্ন
সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদঃ

সিলেট ও সুনামগঞ্জের ৭ পৌরসভায় আ’লীগ ও বিএনপির মেয়র প্রার্থী চূড়ান্ত

imagesস্টাফ রিপোর্টার:: সিলেট ও সুনামগঞ্জ জেলার সাত পৌরসভায় আওয়ামী লীগ, বিএনপি মেয়র পদে তাদের প্রার্থী চূড়ান্ত করেছে। সিলেটের কাইঘাট পৌরসভায় জামায়াত তাদের প্রার্থীকে স্বতন্ত্র হিসেবে নির্বাচন করার ঘোষণা দিয়েছে। এছাড়া জাতীয় পার্টি সিলেটের তিনটি পৌরসভায় তাদের প্রার্থী মনোন্নয়ন দিয়েছে।সিলেট জেলায় আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেয়েছেন গোলাপগঞ্জ পৌরসভার দুইবারের নির্বাচিত মেয়র, পৌর আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক জাকারিয়া আহমদ পাপলু, বিএনপির গোলাম কিবরিয়া চৌধুরী শাহীন ও জাতীয় পার্টির জমির উদ্দিন আহমদ।কানাইঘাটে আওয়ামী লীগের বর্তমান মেয়র লুৎফুর রহমান ও জাতীয় পার্টির উপজেলা সাধারণ সম্পাদক বাবুল আহমদ। এ পৌরসভায় বিএনপির প্রার্থী রহিমউদ্দিন ভরসা। প্রথমে এখানে ২০ দলীয় জোটের শরীক জামায়াতকে ছাড় দেওয়া হয়েছিল। তবে জামায়াত ধানের শীষে নির্বাচন না করে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে ভোটে অংশ নিতে চাইলে বিএনপি তাদের প্রার্থী দেয়। স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নিবাচন করবেন জামায়াতের প্রার্থী হিসেবে গত বারের নির্বাচনে দ্বিতীয় স্থান অধিকারী ওলিউল্লাহ।জকিগঞ্জ পৌরসভায় আওয়ামী লীগের মনোনীত মেয়র প্রার্থী উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার খলিলুর রহমান। এই পৌরসভায় জাতীয় পার্টির প্রার্থী থাকছেন বর্তমান মেয়র ও পার্টির পৌর আহ্বায়ক নেতা আবদুল মালেক ফারুক। এখানে বিএনপির প্রার্থী মনোনীত হয়েছেন উপজেলা কমিটির সাবেক সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক বদরুল হক বাদল।সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শফিকুর রহমান চৌধুরী বলেন, তৃণমূলের মতামতের পরিপ্রেক্ষিতে মেয়র পদে তিনজন প্রার্থীর নাম প্রস্তাব করে দলীয় সভানেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে পাঠানো হয়েছে।জাপার কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ও সিলেট জেলার আহবায়ক আব্দুল্লাহ সিদ্দিকী বলেন, সিলেটে তিন পৌরসভায় জাপার একক প্রার্থী দিয়েছেন পার্টির চেয়ারম্যান এইচ এম এরশাদ।সিলেট জেলা বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম আহ্বায়ক দিলদার হোসেন সেলিম বলেন, সিলেটের তিনটি পৌরসভায় বিএনপির একক প্রার্থী দেয়া হয়েছে।এদিকে, আমাদের সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি জানান, সুনামগঞ্জের চারটি পৌরসভায় মেয়র পদে আওয়ামী লীগও বিএনপির আট মেয়র প্রার্থী চূড়ান্ত করা হয়েছে। বুধবার বিএনপির দলীয় চার প্রার্থী ঘোষণা করা হয়েছে। জেলা শহরের প্রেসক্লাব মিলনায়তনে আনুষ্ঠানিকভাবে জেলা বিএনপির এক সভায় প্রার্থীদের নাম ঘোষণার পর তাঁদের হাতে কেন্দ্রের চিঠি তুলে দেওয়া হয়।অন্যদিকে আওয়ামী লীগের প্রার্থী বাছাই কমিটি জগন্নাথপুর পৌরসভায় দলের প্রার্থী হিসেবে সাবেক পৌর চেয়ারম্যান মিজানুর রশিদ ভূইয়ার নাম কেন্দ্রে পাঠায়। কিন্তু কেন্দ্র থেকে মিজানুর রশিদকে বাদ দিয়ে সাবেক পৌর মেয়র আবদুল মনাফকে প্রার্থী করা হয়েছে।সুনামগঞ্জে চার পৌরসভায় বিএনপির মেয়র প্রার্থীরা হলেন, সুনামগঞ্জ পৌরসভায় জেলা জিয়া পরিষদের সভাপতি ও পৌর কলেজের অধ্যক্ষ মো. শেরগুল আহমেদ, দিরাই পৌরসভায় মইন উদ্দিন চৌধুরী মাসুক, ছাতক পৌরসভায় পৌর বিএনপির যুগ্ম-আহবায়ক শামছুর রহমান, জগন্নাথপুর পৌরসভায় উপজেলা ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি মো. রাজু আহমদ।অন্যদিকে সুনামগঞ্জের চারটি পৌরসভায় মেয়র পদে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসেবে যাঁরা দলের কেন্দ্রিয় সভানেত্রী শেখ হাসিনার চিঠি পেয়েছেন তাঁরা হলেন, সুনামগঞ্জ পৌরসভায় বর্তমান মেয়র ও জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মো. আয়ুব বখত জগলুল, ছাতক পৌরসভায় বর্তমান মেয়র আবুল কালাম চৌধুরী, জগন্নাথপুর পৌরসভায় সাবেক পৌর চেয়ারম্যান আবদুল মনাফ, দিরাই পৌরসভায় মোশারফ হোসেন।জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মতিউর রহমান বলেন, সুনামগঞ্জের চার পৌরসভায় দলীয় মেয়র প্রার্থীদের কাছে কেন্দ্রের চিঠি পৌঁছে দেওয়া হয়েছে। কেন্দ্র থেকে যে সিদ্ধান্ত দেওয়া হয়েছে সেটিই চূড়ান্ত। এই প্রার্থীদের পক্ষে সকল নেতা-কর্মীদের কাজ করতে হবে।তবে জগন্নাথপুর পৌরসভায় আওয়ামী লীগের মনোনয়প্রত্যাশী মিজানুর রশিদ ভূইয়া বলেছেন, ‘তৃণমূলের পর জেলার প্রার্থী বাছাই কমিটি আমাকে জগন্নাথপুর পৌরসভায় দলীয় মেয়র প্রার্থী ঘোষণা করে। এখন কিভাবে কী হয়েছে বুঝতে পারছিনা।’ তিনি স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনে অংশ নেবেন না বলে জানিয়েছেন।জেলা বিএনপির আহবায়ক নাছির উদ্দিন চৌধুরী বলেছেন, দলের মেয়র প্রার্থীদের পক্ষে কাজ করার জন্য সকল নেতা-কর্মীদের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

এছাড়াও নিম্নের সংবাদগুলো দেখতে পারেন...

সেই রাবি শিক্ষকের বিরুদ্ধে ছাত্রীর যৌন হয়রানির অভিযোগ

আত্মহত্যা’ করা রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক আকতার জাহান জলির সাবেক …

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Open