মঙ্গলবার, এপ্রিল ২০, ২০২১ : ২:২৫ অপরাহ্ন
সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদঃ

স্থানীয় সরকার বিল: সংসদীয় কমিটিতে ইসি সচিবকে তলব

সংসদ_91002সিলেট ভিউজ টুয়েন্টিফোর ডট কম: দলীয় প্রতীকে পৌরসভা নির্বাচন অনুষ্ঠানের জন্য সংসদে উত্থাপিত বিলটি নিয়ে পর্যালোচনায় বসছে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটি। সোমবার বিকfল তিনটায় সংসদ ভবনে অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া সভায় ডাকা হয়েছে নির্বাচন কমিশন সচিব মো. সিরাজুল ইসলামকে। ইতিপূর্বে সংসদীয় কমিটির সভায় নির্বাচন কমিশনের কোনো প্রতিনিধিকে ডাকা না হলেও এবারই ব্যতিক্রম হচ্ছে। শুধু তাই নয়, সংসদীয় কমিটির বৈঠকের কথাও জানেন না অনেক সদস্য।সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ইচ্ছাতেই স্থানীয় সরকার নির্বাচন দলীয় প্রতীকে করার সিদ্ধান্ত নেয় সরকার। সেই আলোকে স্থানীয় সরকার বিভাগ এ সংক্রান্ত নীতিমালা প্রণয়ন করে আইন মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়। পরে সেটি বিল আকারে রবিবার তোলা হয় সংসদে। অথচ একটি পক্ষ ভেতরে ভেতরে এই বিলের বিরোধিতা করছে। সরাসরি প্রধানমন্ত্রী নির্দেশনা থাকলেও এটিকে জটিলতার দিকে ঠেলে দেয়ার চেষ্টা হচ্ছে বলে অভিযোগ আছে।স্থানীয় সরকার বিশেষজ্ঞরা বলেন, স্থানীয় সরকার নির্বাচন দলীয় প্রতীকে করার সিদ্ধান্ত যুগান্তকারী। এর মাধ্যমে রাজনৈতিক দলগুলোরও জবাবদিহিতা বাড়বে। জানতে চাইলে স্থানীয় সরকার বিশেষজ্ঞ তোফায়েল আহমেদ ঢাকাটাইমসকে বলেন, ‘সরকার যে সিদ্ধান্ত নিয়েছে সেটি বাস্তবায়ন করতে পারলে ভালো। এতে তৃণমূলের রাজনীতিতে আরও জবাবদিহিতা ও স্বচ্ছতা নিশ্চিত হবে।’ সংসদীয় কমিটির বৈঠকে নির্বাচন কমিশন সচিবকে ডাকার মতো ব্যতিক্রমী ঘটনার ব্যাপারে তিনি বলেন, ‘এটা অতীতে কখনও হয়নি। এখন সংসদ কমিটি নির্বাচন কমিশনের প্রতিনিধি ডেকেছে। তাদের কোনো আপত্তি আছে কিনা জানানোর জন্য। তবে তাদের কোনো আপত্তি থাকার তো কথা নয়।’জানতে চাইলে নির্বাচন কমিশন সচিব মো. সিরাজুল ইসলাম সোমবার সকালে ঢাকাটাইমসকে বলেন, ‘সংসদীয় কমিটিতে যাওয়ার জন্য ম্যাসেজ পেয়েছি। এই মুহূর্তে ঢাকার বাইরে আছি। ফিরে এসে যদি সময় করতে পারি তবে বৈঠকে যাবো।’ তিনি বলেন, ‘আলোচনা কী নিয়ে হবে তা এখনও নিশ্চিত নয়। তবে শুনেছি পৌরসভা নির্বাচন সংক্রান্ত বিল নিয়ে কথা হবে।’বিকালে সংসদীয় কমিটির বৈঠক ডাকা হলেও সোমবার বেলা ১১টা পর্যন্ত কমিটির অনেক সদস্য এ সম্পর্কে কিছু জানেন না বলে ঢাকাটাইমসকে জানান। বেলা সাড়ে ১০টার দিকে যোগাযোগ করা হলে, সংসদীয় কমিটির সদস্য ফজলে হোসেন বাদশা বলেন, ‘বৈঠকের ব্যাপারে এখনো জানি না। তবে নির্বাচন কমিশন সচিবকে তো ডাকার কথা নয়।’ আরেক সংসদ সদস্য রাজিউদ্দিন আহমেদ রাজু বলেন, ‘শুনেছি বৈঠক আছে। কিন্তু কাদের ডাকা হয়েছে তা জানি না। সভাপতি সব জানেন।’ নারী সংসদ সদস্য ও কমিটির সদস্য মাহবুব আরা গিনি বলেন, ‘বিকেলে বৈঠক আছে কিনা জানি না।’ সংসদ সদস্য রহিমা আক্তার বলেন, ‘কমিটিতে আছি। বৈঠকে ডাকা হলে যাই। এর বাইরে কিছু বলতে পারবো না।’ যোগাযোগের জন্য স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি আবুল হাসনাত আব্দুল্লাহর মুঠোফোনে একাধিকবার যোগাযোগ করা হলেও তাকে পাওয়া যায়নি।এর আগে রবিবার সচিবালয়ে নিজ কার্যালয়ে স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার খন্দকার মোশাররফ হোসেন সাংবাদিকদের বলেন, ‘পৌরসভা নির্বাচনে শুধু মেয়র প্রার্থীরা দলীয় প্রতীকে নির্বাচন করতে পারবেন। আর বাকি সবাইকেই নির্দলীয়ভাবে নির্বাচন করতে হবে।’ আগামী ১৮ নভেম্বর বিলটি সংসদে পাস হবে বলেও জানান তিনি।

এছাড়াও নিম্নের সংবাদগুলো দেখতে পারেন...

বেতন স্কেল ১০ গ্রেডে উন্নীতকরণের দাবি প্রধান শিক্ষকদের

ডেস্ক রিপোর্ট :: দ্বিতীয় শ্রেণির গেজেটেড (নন-ক্যাডার) প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত ও প্রশিক্ষণবিহীন উভয় প্রধান শিক্ষকদের প্রবেশ পদে …

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Open