শনিবার, ফেব্রুয়ারী ২৭, ২০২১ : ৬:১৪ পূর্বাহ্ন
সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদঃ

প্রকৃত মুসলিম জীবন বাঁচায় প্রমাণ মিললো প্যারিসে

Paris_attack20151115145237আন্তর্জাতিক ডেস্ক : একজন প্রকৃত মুসলিম কখনো মানুষ হত্যা করতে পারেন না। বরং তারা মানুষের জীবন বাঁচায়। প্যারিসে বর্বরোচিত হত্যাকাণ্ডের সময় দুই নারীর জীবন বাঁচান সাফের নামের এক মুসলিম তরুণ। তিনি প্রমাণ করলেন প্রকৃত মুসলিম মানুষ হত্যা করে না বরং জীবন বাঁচায়।কিন্তু এই মুসলিমদেরই একটি দল আবার সৃষ্টিকর্তার নামে মানুষ হত্যা করছে কেন? জানতে চাইলে সাফের বলেন, ‘এর সঙ্গে ধর্মের কোনো সম্পর্ক নেই। সত্যিকারের মুসলমানেরা কখনো মানুষ হত্যা করবে না। এরা অপরাধী’।বিবিসি অনলাইনে প্রকাশিত হয়েছে সাফেরেরে এই সাহসিকতার গল্প। শুক্রবার কাসা নস্ত্রা পিৎজা রেস্তোরাঁয় যখন বন্দুকধারীরা তাণ্ডব চালাচ্ছিল, সে সময় ওই রেস্তোরাঁর পেছনের এক বারে কাজ করছিলেন সাফের। হামলায় নিহত হয়েছেন পাঁচজন। ঠিক ওই সময় নিজের জীবনের ঝুঁকি নিয়ে মানুষের জীবন বাঁচান তিনি।  তিনি বলেন, ‘কাউন্টারে দাঁড়িয়ে ছিলাম। এ সময় প্রচণ্ড বিস্ফোরণের শব্দ শুনলাম। সবাই চিৎকার করতে শুরু করল। আমাদের ওপর ঝুরঝুর করে কাচ ভেঙে পড়ছিল। পুরো জায়গাটিতে কাঁচ ছড়িয়ে পড়ে ছিল। আমাদের মুখে এসে কাচের টুকরা লাগছিল। আমি দেখলাম বারান্দায় দাঁড়ানো দুই নারী গুলিবিদ্ধ হয়েছেন। এদের একজন কবজিতে ও অপরজনের কাঁধে গুলিবিদ্ধ হয়েছে। ক্ষতস্থান থেকে প্রচুর রক্ত ঝরছিল।’গোলাগুলি একটু স্তিমিত হওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করেন তিনি। এরপরই ওই নারীদের কাছে ছুটে যান। সাফের বলেন, ‘আমি তাদের ভবনের ভূগর্ভস্থ কক্ষে নিয়ে গেলাম। তাদের পাশে বসে রক্তপাত বন্ধের চেষ্টা করলাম।’ এভাবেই ওই নারীদের জীবন বাঁচিয়ে একজন প্রকৃত মুসলিমের দায়িত্ব পালন করেন সাফের। প্রসঙ্গত, এর আগে চলতি বছরের জানুয়রিতে প্যারিসের একটি সুপার মার্কেটে হামলা চলাকালে ক্রেতাদের ভূগর্ভস্থ একটি কক্ষে লুকিয়ে রেখেছিলেন এক অভিবাসী মুসলমান তরুণ লাসান্না বাথিল্লি। তিনিও মুসলিম সাফেরও মুসলিম।

এছাড়াও নিম্নের সংবাদগুলো দেখতে পারেন...

চীনে টর্নেডো-শিলাবৃষ্টিতে ৯৮ জনের মৃত্যু

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : চীনের পূর্বাঞ্চলীয় জিয়াংসু প্রদেশে টর্নেডো ও শিলাবৃষ্টির আঘাতে কমপক্ষে ৯৮ জনের মৃত্যু …

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Open