বুধবার, ডিসেম্বর ২, ২০২০ : ৬:২৩ অপরাহ্ন
সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদঃ

কানাইঘাটে প্রবাসীর বাড়ীতে ডাকাতি ৩ লক্ষ টাকার মালামাল লুট

5কানাইঘাট সংবাদদাতা: কানাইঘাট দিঘীরপাড় পূর্ব ইউপির খুলোরমাটি গ্রামের সৌদি প্রবাসী নুরুল আমিন চৌধুরীর বাড়িতে ডাকাতি সংঘটিত হয়েছে। অস্ত্রধারী একদল ডাকাত গত রবিবার দিবাগত রাত অনুমান দেড়টার দিকে সৌদি প্রবাসীর বশত বাড়িতে হানা দিয়ে ঘরের দরজা ভেঙ্গে ভেতরে প্রবেশ করে পরিবারের সবাইকে জিম্মি করে ৯ ভরি স্বর্ণালংকার, নগদ ৫৮ হাজার টাকাসহ প্রায় সাড়ে ৩ লাখ টাকার মালামাল লুট করে নিয়ে গেছে।
প্রবাসীর পিতা হাফিজ আতাউর রহমান চৌধুরী জানান, রবিবার দিবাগত রাত অনুমান দেড়টার দিকে ১০/১২ জনের অস্ত্রধারী একদল ডাকাত তার বশত ঘরের একটি কক্ষের দরজা ভেঙ্গে ভিতরে প্রবেশ করে তিনি সহ তার স্ত্রী ও দুই মেয়েকে অস্ত্রের মাধ্যমে জিম্মি করে বেঁধে রাখে। ডাকাতরা ঘরের ৪টি কক্ষে হানা দিয়ে স্টীল ও কাঠের সোকেস, আলমারী, সুটকেস ভেঙ্গে অন্যান্য মালামাল তছনছ করে প্রায় আধাঘন্টা তান্ডব চালিয়ে ৯ ভরি স্বর্ণালংকার, নগদ ৫৮ হাজার টাকা, ৩টি লাইট, ১টি মোবাইল সেট সহ আনুসাঙ্গিক দামী জিনিসপত্র লোট করে নিয়ে যায়।
ডাকাতদের কয়েকজনের হাতে বন্দুক ও রড ছিল। একজন মুখোশপরা, অন্যান্য ডাকতদের পরনে ছিল হাফ প্যান্ট ও ফুল প্যান্ট। ডাকাতরা চলে যাওয়ার পর তাদের আত্মচিৎকারে আশপাশের লোকজন এগিয়ে এসে তাদের উদ্ধার করেন। পরে ডাকাতির ঘটনাটি তাৎক্ষণিকভাবে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল মুমিন চৌধুরীকে জানানো হলে তিনি কানাইঘাট থানার এসআই স¤্রাজকে জানালে পুলিশ সাথে সাথে ঘটনাস্থলে ছুটে গিয়ে স্থানীয় লোকজনদের সহায়তায় ডাকাতদের গ্রেপ্তারে অভিযান চালায়। তবে ডাকাতরা এর আগেই পালিয়ে যায়। গতকাল সোমবার কানাইঘাট থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। এ ঘটনায় বাড়ির গৃহকর্তা হাফিজ আতাউর রহমান চৌধুরী বাদি হয়ে থানায় ডাকাতি মামলা দায়েরের প্রস্তুতি নিচ্ছেন বলে জানা গেছে।
এ ব্যাপারে কানাইঘাট থানার অফিসার ইনচার্জ মো. হুমায়ুন কবির বলেন, ডাকাতির ঘটনা শুনে তাৎক্ষণিক প্রবাসীর বাড়িতে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। ডাকাতির ঘটনাটি তদন্ত চলছে, জড়িতদের চিহ্নিত করে গ্রেপ্তার করা হবে।
স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল মুমিন চৌধুরী জানিয়েছেন, সম্প্রতি খুলুরমাটি গ্রামে দু’ই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষে একজনের মৃত্যু হলে উভয় পক্ষে থানায় মামলা করলে বর্তমানে গ্রামের অনেকে বাড়ি ছাড়া। এছাড়া যৌথ বাহিনীর বিশেষ অভিযানের কারনে আশপাশের লোকজন বাড়ী ছেড়ে অন্যত্র আশ্রয় নেওয়ার কারনে দুষ্কৃতিকারীরা বাড়ি ঘরে হানা দিয়ে ডাকাতি, চুরি সংঘটিত করছে। তিনি বলেন, গত দুই মাসে খুলুরমাটি, লন্তিরমাটি এলাকায় ৩/৪টি ডাকাতির ঘটনা সংঘটিত হয়েছে।

এছাড়াও নিম্নের সংবাদগুলো দেখতে পারেন...

বিশ্বনাথে ধর্ষণের অভিযোগে ইউপি মেম্বার গ্রেফতার

সিলেটের বিশ্বনাথে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে তরুণীকে ধর্ষণ করার অভিযোগে উপজেলার দৌলতপুর ইউপির ১নং ওয়ার্ডে মেম্বার …

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Open