বৃহস্পতিবার, অক্টোবর ২৯, ২০২০ : ১০:৪৭ অপরাহ্ন
সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদঃ

জিগাতলার অস্থায়ী কারবালায় তাজিয়া মিছিল

Add caption
মহররম উপলক্ষে রাজধানীর পুরান ঢাকার হোসনি দালান ও চকবাজার থেকে বের হওয়া তাজিয়া মিছিল এখন জিগাতলার অস্থায়ী কারবালা প্রান্তরে অবস্থান করছে। হাজারো শিয়া মুসলমান নারী-পুরুষের অংশগ্রহণে সেখানে বিভিন্নভাবে চলছে শোকের মাতম। অনেককেই হায় হোসেন হায় হোসেন বলে কারবালার ফোরাত নদীতে (প্রতীকী) ঝাপিয়ে পড়ছেন। অনেককে দেখা যায় ইমাম হোসেনের শিশু ছেলে আজগরের জন্য পানি আনতে ফোরাতে(ধানমন্ডি লেকে) ঝাপিয়ে পড়তে। অনেকে এখানে মানত(দোআ প্রার্থনা) করছেন। আজ ১০ মহররম। হিজরির বর্ষের প্রথম মাস মহররম। এই দিনে কারবালায় হযরত মুহাম্মদ (সা.)-এর দৌহিত্র ইমাম হোসেন ইয়াজিদ বাহিনীর আঘাতে শহীদ হন।দিনটি সারাবিশ্বে মুসলমানরা পালন করে আসছেন। বাংলাদেশেও যথাযোগ্য মর্যাদা ও ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্যের মধ্য দিয়ে পালিত হচ্ছে দিবসটি। এ উপলক্ষে রাজধানীতে নেয়া হয়েছে নানা কর্মসূচি। ৩২ বছর ধরে তাজিয়া পালন করে আসছেন সজল নামে এক ব্যক্তি। অসুস্থ সত্বেও তিনি তাজিয়া মিছিলের সঙ্গে এসেছেন অস্থায়ী কারবালা প্রান্তরে। তিনি বলছেন, এখানে ইমাম হোসেনের মঙ্গল কামনা, নিজেদের জন্য, মানত (দোআ), দেশবাসীর মঙ্গল কামনা করে মাতমের সুরে চলছে দোআ। ভক্তরা বলছেন, মাতম চললেও ইমাম হাসান হোসেনের মৃত্যু আজও মেনে নেয় নি মুসলমানরা। আজও ইয়াজিদের বংশধররা পৃথিবীতে ঘুরে বেড়াচ্ছে। তাদের ধ্বংস কামনা করে যুবকরা এখানে গোসল করে মনকে শান্ত্বনা দিচ্ছেন। হোসনি দালানের তত্ত্বাবধায়ক মির্জা এমদাদ আলী বলেন, এখনকার মিছিল আপাতত শেষ। বিকেল ৪টার দিকে আবারো হোসনি দালান থেকে বের হবে মিছিল। মূলত ইমাম হোসেন (রা.) এর সমাধির প্রতিকৃতি নিয়ে মিছিল হচ্ছে। এছাড়া শিশু আজগরের পিপাসার্ত অবস্থায় মৃত্যুর প্রতিকী চিত্র তুলে ধরা হচ্ছে। এবার মোট তিনটি বড় মিছিল হওয়ার কথা ছিল। কিন্ত রাতে বোমা বিস্ফোরণের ঘটনায় রাতের মিছিলটি স্থগিত করা হয়। উল্লেখ, শুক্রবার রাতে মহররম উপলক্ষে তাজিয়া মিছিল বের হওয়ার সময় হোসনি দালানের মূল ফটকের ভেতরে ৩টি শক্তিশালী বোমা বিস্ফোরণ ঘটে। এতে সানজু নামে এক কিশোর মারা যায়। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন শতাধিক। এ ঘটনায় আব্দুল কাদের জিলানী নামে একজনকে আটক করেছে পুলিশ।

এছাড়াও নিম্নের সংবাদগুলো দেখতে পারেন...

সেই রাবি শিক্ষকের বিরুদ্ধে ছাত্রীর যৌন হয়রানির অভিযোগ

আত্মহত্যা’ করা রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক আকতার জাহান জলির সাবেক …

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Open