শনিবার, অক্টোবর ২৪, ২০২০ : ৫:৩৩ অপরাহ্ন
সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদঃ

প্রেমের ফাঁদে ফেলে মেডিকেল ছাত্রীর…. (ভিডিও)

                                                                       সিলেট ভিউজ টুয়েন্টিফোর ডট কম: জীবনের চড়ম ভুল থেকে সবচেয়ে বড় শিক্ষা পেল মেধাবী মেডিকেল ছাত্রী মিলি। মেডিকেল কলেজের শেষ বর্ষের ছাত্রী মিলি প্রেমের ফাঁদে পরে রাতে পর রাত দেহ বিলিয়ে দিল তার বয়ফ্রেন্ড হাছান নামক যুবককে। আর সেই হাছান প্রতারণা করে ছাত্রীটির সব কিছু লুটিয়ে নিল। এই সত্য ঘটনা অবলম্বনে এক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছেন দেশের প্রথম সারির একটি বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল।প্রতিবেদনটিতে উঠে এসেছে ভুল নম্বরে মোবাইলে কথা বলে খুব অল্প সময়ে পরিচয় থেকে প্রণয় এরপর লিভ টুগেদারের ভয়ানক চিত্র। প্রথম সাক্ষাতের পর থেকেই তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক হতে থাকে গভীর থেকে গভীর। এরপর দিন-রাতের বেশির ভাগ সময় মোবাইলে কথা বলা এবং মাঝে মাঝেই তাদের সাক্ষাত করা।এভাবে কিছুদিন চলার পর মিথ্যা পরিচয় দেয়া নেশাগ্রস্থ হাছান নামক যুবক নানা ছলচাতুরি করে বিয়ে না করেই একসাথে একটি বাসা নিয়ে মেয়েটিকে থাকার প্রস্তাব দেয়। বিয়ে না হওয়ায় মেডিকেল কলেজ ছাত্রীটি প্রথমে এ প্রস্তাবে রাজি হয় না, কিন্তু অভিনয়ের কাছে ছাত্রীটি হেরে গিয়ে অবশেষে স্বামী-স্ত্রীর মিথ্যা পরিচয় দিয়ে একটি বাসার ভাড়া করে একসাথে থাকা শুরু করল এবং মেডিকেল ছাত্রী মিলি তার দেহ বিলিয়ে দিতে থাকল।এভাবে বেশ কিছুদিন চলতে থাকল, নেশাগ্রস্থ হাছান শুধু মিলির দেহভোগ করেই ক্ষ্যান্ত নয় মাঝে মাঝে নানা কারণ দেখিয়ে মেয়েটির কাছ থেকে টাকা পয়সা হাতিয়ে নিয়ে নেশা করতে থাকে। এরপর এক পর্যায়ে এসে মিলি জানতে পারে মিথ্যা পরিচয় দেয়া হাছান আসলে নেশাগ্রস্থ এবং সে আসলে হাছান নয় তার প্রকৃত নাম মেহেদি। কিন্তু মিলি যে ততক্ষণে আটকে গেছে কঠিন ফাঁদে।শেষ পর্যায়ে এসে মেডিকেল ছাত্রী মিলি তার বয়ফ্রেন্ড হাছানকে প্রতারণার কথা বলতেই শুরু হয়ে যায় বাকতিন্ডা। এবং প্রথম দিকে প্রণয় এরপর দেহ বিলিয়ে দেয়া, টাকা পয়সা দিয়ে প্রতারণার কাছে হার মানা এবং সর্বশেসে জীবন দিয়েই শেষ হয় এই নির্মম সত্য ঘটনা। পরে প্রতারক হাছানকে গ্রেফতারও করা হয়। 

এছাড়াও নিম্নের সংবাদগুলো দেখতে পারেন...

বেতন স্কেল ১০ গ্রেডে উন্নীতকরণের দাবি প্রধান শিক্ষকদের

ডেস্ক রিপোর্ট :: দ্বিতীয় শ্রেণির গেজেটেড (নন-ক্যাডার) প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত ও প্রশিক্ষণবিহীন উভয় প্রধান শিক্ষকদের প্রবেশ পদে …

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Open