বুধবার, মে ১২, ২০২১ : ৯:০৭ অপরাহ্ন
সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদঃ

এবার দেশেই সমকামিতায় দুই ছাত্রী

সিলেটভিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম : বিশ্বের বিভিন্ন দেশে সমকামিতার ঘটনা ঘটলেও এবার বাংলাদেশেই ধরা পড়েছে এ ঘটনা। দু’স্কুলছাত্রী বাড়ি থেকে পালিয়ে ‍গিয়ে এ কাজ করেছে। এতে একজন অসুস্থ হয়ে পড়ায় তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। অপরজনের বিরুদ্ধে আনা হয়েছে যৌন নিপীড়ণের অভিযোগ। পরে তাকে আটক করা হয়।

এমনই ঘটনা ধরা পড়েছে বগুড়ায়। যেখানে সমকামিতার উদ্দেশ্যে বাড়ি থেকে উধাও হওয়ার দু’দিন পর তাদের বুধবার দুপুর ১টার দিকে বগুড়া শহরের মালতিনগর এলাকার একটি বাড়ি থেকে উদ্ধার করে পুলিশ।

স্কুলছাত্রীরা হলো- বগুড়া সদরের ফাঁপোড় ইউনিয়নের বেলগাড়ি গ্রামের মোহন ব্যাপরীর মেয়ে জুবলী ইন্সটিটিউশনের সপ্তম শ্রেণীর ছাত্রী তামান্না আক্তার স্মৃতি ওরফে তন্নি ওরফে মনিরা (১৭) এবং শহরের জহুরুল নগর এলাকার গোলাম রসুলের মেয়ে ইয়াকুবিয়া স্কুলের সপ্তম শ্রেণীর ছাত্রী মিমি ওরফে শিলা।

পুলিশ জানায়, মিমির বাবার অভিযোগের সূত্র ধরে পুলিশ শহরের মালতিনগর এলাকার একটি বাসা থেকে তামান্না এবং মিমিকে উদ্ধার করে। দু’জনকেই থানায় নিয়ে আসার পর মিমি অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

BOGRA-pic-(1)থানায় আটক তামান্না জানায়, মিমি জহুরুল নগর এলাকায় তার বোনের বাসায় বসবাস করে লেখা পড়া করে। এই সুযোগে দু’জনের মধ্যে গভীর বন্ধুত্ব সর্ম্পক গড়ে উঠে। তারা দু’জন যৌনকাজ করতে গত ১ জুন বাসা থেকে উধাও হয়ে মালতিনগরে পরিচিত একজনের বাসায় উঠে। সেখান থেকে বুধবার পুলিশ তাদেরকে থানায় নিয়ে আসে। তামান্ন সপ্তম শ্রেনীতে লেখাপড়া করলেও তার বয়স ১৭ বলে দাবি করে এবং একটি বামপন্থি রাজনৈতিক দলের কর্মী বলে সাংবাদিকদেরকে জানায়।

বগুড়া সদর থানার উপ পরিদর্শক (এসআই) আনোয়ার হোসেন জানান, মিমিকে ফুসলিয়ে অপহরণ করে সমকামিতার অভিযোগে তামান্না আক্তারকে আটক করা হয়েছে। সমকামিতা এবং যৌন নীপিড়ণের কারণে মিমি অসুস্থ হয়ে পড়ায় তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। মিমির বাবা তামান্নার বিরুদ্ধে অপহরণ এবং যৌন নীপিড়ণের অভিযোগ দাখিল করলে তা মামলা হিসেবে রেকর্ড করা হবে।

বগুড়ার ভারপ্রাপ্ত পুলিশ সুপার সাইফুজ্জামান ফারুকী জানান প্রাথমিকভাবে জানা গেছে সমকামিতার কারণে মিমিকে একটি বাড়িতে আটকে রাখা হয়েছিল। মিমি অসুস্থ হয়ে পড়ায় তার কাছে বিস্তারিত জানা যায়নি। এ ঘটনায় অপহরণ করে যৌন নীপিড়নের অভিযোগে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে থানায় মামলা হবে।

এছাড়াও নিম্নের সংবাদগুলো দেখতে পারেন...

‘প্রশিক্ষণ ও অনুশীলনের মাধ্যমে দক্ষতা বৃদ্ধি করতে হবে’

ডেস্ক রিপোর্ট :: সেনাবাহিনী প্রধান জেনারেল আবু বেলাল মোহাম্মদ শফিউল হক বলেছেন, সেনা সদস্যদের কঠোর …

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Open