শুক্রবার, এপ্রিল ১৬, ২০২১ : ৪:২৫ অপরাহ্ন
সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদঃ

কোপা আমেরিকার শুরুতেই হোঁচট আর্জেন্টিনার

সিলেটভিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম : কোপা আমেরিকা ফুটবলে আর্জেন্টিনার শুরুটা ভাল হলো না। নিজেদের প্রথম ম্যাচে প্যারাগুয়ের সঙ্গে ২-২ গোলে ড্র করেছে টুর্নামেন্টের অন্যতম ফেভারিটরা।
সের্হিও আগুয়েরো ও লিওনেল মেসির গোলে প্রথমার্ধে ২ গোলে এগিয়ে গেলেও তা ধরে রাখতে পারেনি আর্জেন্টিনা।
দ্বিতীয়ার্ধে দারুণভাবে ফিরে এসে আন্তোনিও ভালদেস ও লুকাস বারিওসের গোলে পয়েন্ট ভাগাভাগি করে প্যারাগুয়ে।
রবিবার ভোরের এই ম্যাচে ষষ্ঠ মিনিটে এগিয়ে যাওয়ার প্রথম সুযোগ পেয়েছিল আর্জেন্টিনা। কিন্তু সেটা কাজে লাগাতে ব্যর্থ হন লিওনেল মেসি-সের্হিও আগুয়েরোরা।
এরপর আর্জেন্টিনার তারকায় ভরা আক্রমণভাগের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে তাদের রক্ষণে চাপ বাড়াতে থাকে প্যারাগুয়ে। গোছানো কয়েকটি আক্রমণ করলেও হাভিয়ের মাসচেরানো ও মার্কোস রোহোদের দেয়াল ভাঙতে পারছিল না দলটি।
এরই মধ্যে ২৯তম মিনিটে প্যারাগুয়ের রক্ষণে চরম ভুলের সুযোগ কাজে লাগিয়ে আর্জেন্টিনাকে এগিয়ে দেন আগুয়েরো। গোলমুখে ব্যাকপাস দিয়েছিলেন ডিফেন্ডার মিগুয়েল সামুদিও, কিন্তু তার আস্তে করে বাড়ানো বল দ্রুত ছুটে এসে নিয়ন্ত্রণে নিয়ে গোলরক্ষকের বাধা এড়িয়ে জালে জড়ান ম্যানচেস্টার সিটির স্ট্রাইকার আগুয়েরো।
ব্যবধান দ্বিগুণ করতেও দেরি করেনি আর্জেন্টিনা। ৩৪তম মিনিটে প্যারাগুয়ের ডি বক্সের ডান-দিক দিয়ে ঢুকে পড়া আর্জেন্টাইন মিডফিল্ডার আনহেল দি মারিয়াকে ফাউল করেন সামুদিও। ফলে পেনাল্টি পায় ১৪ বারের চ্যাম্পিয়নরা। তা থেকেই দলের দ্বিতীয় গোলটি করেন বার্সেলোনার হয়ে এবার ‘ট্রেবল’ জেতা মেসি।
দ্বিতীয়ার্ধে আক্রমণাত্মক খেলে দারুণভাবে ঘুরে দাঁড়ায় প্যারাগুয়ে। আক্রমণ-পাল্টা আক্রমণে জমে ওঠে লড়াই।
৬০তম মিনিটে ভালো একটা সুযোগও পায় তারা, কিন্তু সেটা কাজে লাগাতে ব্যর্থ হয় দলটি। তবে এর খানিক পরেই ডি বক্সের বাইরে থেকে জোরালো শটে ব্যবধান কমান আন্তোনিও ভালদেস।
এর দুই মিনিট পর ব্যবধান বাড়ানোর সুযোগ তৈরি করেছিলেন মেসি। রক্ষণের বাধা এড়িয়ে গোলরক্ষককে কাটিয়ে বাঁ-দিক দিয়ে ঢুকে পড়েছিলেন টানা চারবারের বর্ষসেরা এই তারকা, কিন্তু দুরূহ কোণ থেকে নেওয়া তার কোনাকুনি শটটি অল্পের জন্য লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়।
৬৭তম মিনিটে আরেকটি সহজ সুযোগ নষ্ট করেন আর্জেন্টিনার হাভিয়ের পাস্তোরে। পিএসজির এই মিডফিল্ডারের জোরালো শট ঝাঁপিয়ে পড়ে ঠেকিয়ে দেন গোলরক্ষক।
৭১তম মিনিটে বড় বাঁচা বেঁচে যায় আর্জেন্টিনা। দেরলিস গনসালেসের কোনাকুনি শটে ভালদেস পা লাগালেই গোল হতে পারত, কিন্তু বরুসিয়া ডর্টমুন্ডের সাবেক এই ফরোয়ার্ড সেটা পারেননি।
এর দুই মিনিট পর ফের হতাশ হতে হয় আর্জেন্টিনাকে। বাঁ-দিক থেকে এভার বানেগার কোনাকুনি শটে পা ছোঁয়ালেই গোল হতো, কিন্তু পারেননি মেসি।
৭৭তম মিনিটে প্যারাগুয়ের আরেকটি দারুণ প্রচেষ্টা ঠেকিয়ে দেন আর্জেন্টিনা গোলরক্ষক রোমেরো।
৮৮তম মিনিটে প্যারাগুয়েকে সমতায় ফেরার লুকাস বারিওস। ডিফেন্ডার পাওলো দা সিলভার হেড থেকে বল পেয়ে ১৫ গজ দূর থেকে জোরালো নিচু শটে সমতাসূচক গোলটি করেন বদলি হিসেবে নামা এই ফরোয়ার্ড।
যোগ করা সময়ে আর্জেন্টিনাকে আবার এগিয়ে দেওয়ার সুযোগ পেয়েছিলেন কার্লোস তেভেস। কিন্তু দি মারিয়ার ক্রসে ফাঁকায় দাঁড়িয়েও লক্ষ্যভ্রষ্ট হেড করেন ইউভেন্তুসের এই তারকা ফরোয়ার্ড। ফলে ১ পয়েন্ট নিয়েই সন্তুষ্ট থাকতে হয় ১৪ বারের চ্যাম্পিয়নদের।

এছাড়াও নিম্নের সংবাদগুলো দেখতে পারেন...

আর্জেন্টিনায় সবাইকে ছাড়িয়ে মেসি

ক্রীড়া ডেস্ক :  এখনো ‘কালি’টা পুরোপুরি মুছে যায়নি। তিন নাকি হট ফর ক্লাব, নট ফর …

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Open