সোমবার, নভেম্বর ৩০, ২০২০ : ৫:২০ অপরাহ্ন
সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদঃ

জাফর ইকবালকে নিয়ে এমপি কয়েসের কটুক্তি, নীরব আ.লীগ

শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের জনপ্রিয় শিক্ষক অধ্যাপক জাফর ইকবালকে চাবুক মারার ইচ্ছে পোষন করেছেন সিলেট-৩ আসনের সংসদ সদস্য আওয়ামী লীগ নেতা মাহমুদ উস সামাদ চৌধুরী কয়েস। তার ধৃষ্টতাপূর্ণ এমন বক্তব্য সর্বমহলে প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়েছে। একজন শিক্ষককে সাংসদের চাবুক মারার অভিপ্রায় ব্যক্তে নিন্দার ঝড় ওঠেছে সিলেটজুড়ে। সাংসদ কয়েসের এমন কটুক্তিপূর্ণ বক্তব্যে সিলেটের সাধারণ মানুষ প্রতিবাদ জানালেও নিরব রয়েছেন আওয়ামী লীগের শীর্ষ নেতারা। তারা বিষয়টি এড়িয়ে যাওয়ার চেষ্টা করছেন। 
গত ৯ মে নিজ নির্বাচনী এলাকার একটি সভায় শাবি শিক্ষক অধ্যাপক মুহম্মদ জাফর ইকবালকে চাবুক মারার ইচ্ছা প্রকাশ করেন সিলেট-৩ (দক্ষিণ সুরমা-ফেঞ্চুগঞ্জ) আসনের সংসদ সদস্য মাহমুদ উস সামাদ চৌধুরী কয়েস৷
শাবিপ্রবিতে সিলেটের ছেলেরা ভর্তি হোক জাফর ইকবাল তা চান না, এমন অভিযোগ তুলে আওয়ামী লীগের এই সাংসদ জনপ্রিয় লেখক জাফর ইকবালকে চাবুক মারার কথা বলেন৷
শুধু সাংসদের চাবুক মারার ইচ্ছায় থেমে থাকেনি বিষয়টি। পরে ‘সিলেটবাসী’র ব্যানারে জাফর ইকবালের বিরুদ্ধে একটি মিছিলও করেন সাংসদ কয়েস অনুসারীরা। 
সম্প্রতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছেলে সজীব ওয়াজেদ জয়ের কঠোর সমালোচনা করেও খবরের শিরোনামে এসেছেন মুহাম্মদ জাফর ইকবাল৷
ব্লগার অনন্ত বিজয় দাশ হত্যাকাণ্ডের পরের ভূমিকা নিয়ে সরকারের সমালোচনার জবাবে সজীব ওয়াজেদ জয়ের সাম্প্রতিক মন্তব্য মৌলবাদীদের উৎসাহিত করবে- এমন মন্তব্য করেছিলেন অধ্যাপক মুহম্মদ জাফর ইকবাল৷
সিলেট-৩ আসনের আওয়ামী লীগ দলীয় সংসদ সদস্য মাহমুদ উস সামাদ চৌধুরী কয়েসের মুহাম্মদ জাফর ইকবালকে নিয়ে অশালীন মন্তব্য এবং ‘সিলেটবাসী’-র ব্যানারে ‘প্রতিবাদ মিছিল’ করা হলেও শাবিপ্রবি শিক্ষকের বিরুদ্ধে তারা সুনির্দিষ্ট কোনো অভিযোগ উত্থাপন করতে পারেননি৷ 
একজন শিক্ষকের বিরুদ্ধে এমন তৎপরতায় সাংবাদিক , ব্লগার এমনকি আওয়ামী লীগের ছাত্র সংগঠন ছাত্র লীগের কোনো কোনো নেতাও ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন৷ তারা জানিয়েছেন, অধ্যাপক জাফর ইকবালের পাশে তারা ছিলেন এবং থাকবেন। কিন্তু এ ব্যাপারে সম্পূর্ণ নিরব রয়েছেন আওয়ামী লীগ নেতারা। 

এছাড়াও নিম্নের সংবাদগুলো দেখতে পারেন...

সিলেটে আদালতপাড়া থেকে আসামির পলায়ন নিয়ে তোলপাড়

দুই শ’ পিস ইয়াবাসহ গত মঙ্গলবার র‌্যাব-৯ এর একটি দল আটক করেছিল তাকে। এরপর থানায় …

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Open