মঙ্গলবার, ডিসেম্বর ১, ২০২০ : ৮:০৪ পূর্বাহ্ন
সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদঃ

প্রেমিকা পেটানো শাবির সেই ছাত্র গ্রেফতার

 শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (শাবিপ্রবি) অর্থনীতি বিভাগের স্নাতকোত্তর শ্রেণীর এক ছাত্রীকে জুতাপেটা করার অভিযোগে কথিত প্রেমিক ও বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্যবসা প্রশাসন বিভাগের ২০০৮-০৯ শিক্ষাবর্ষের ছাত্র রিফাত আদনান পাপনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার সোয়া ৬টার দিকে শাবি ক্যাম্পাস থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

জালালাবাদ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আখতার হোসেন গ্রেফতারের বিষয়টি নিশ্চিত করে সিলেটভিউ২৪ডটকমকে জানান, শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (শাবিপ্রবি) অর্থনীতি বিভাগের স্নাতকোত্তর শ্রেণীর এক ছাত্রীর অভিযোগের প্রেক্ষিতে পাপনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০০৮-০৯ শিক্ষা বর্ষের অর্থনীতি বিভাগের স্নাতকোত্তর শ্রেণীর এক ছাত্রীর সাথে ব্যবসা প্রশাসন বিভাগের ২০০৮-০৯ শিক্ষা বর্ষের ছাত্র রিফাত আদনান পাপনের দীর্ঘ দিনের প্রেমের সম্পর্ক ছিল। অনার্স প্রথম বর্ষেই উভয়ের মধ্যে প্রেমের সর্ম্পক গড়ে ওঠে। সম্প্রতি ওই মেয়ের সঙ্গে পাপনের সম্পর্ক ভেঙে যায়। এই নিয়ে দু’জনের মধ্যে কয়েকবার ঝগড়াও হয়।

গত রোববার রাত ৮টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটকের সামনে চায়ের দোকানে বসে বন্ধুদের সঙ্গে আড্ডা দিচ্ছিলেন তার সাবেক প্রেমিকা। এমন সময় প্রেমিক রিফাত আদনান পাপন এসে মেয়েটিকে তার সঙ্গে যেতে বলেন। কিন্তু ডাকে সাড়া না দেয়ায় পাপন এক পর্যায়ে জুতা দিয়ে পিটিয়ে তাকে আহত করেন।
এই ঘটনায় অভিযুক্ত প্রেমিকের বিরুদ্ধে সোমবার বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর বরাবর লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন ওই ছাত্রী। অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে গতকাল সোমবার রিফাত আদনান পাপনকে আগামী ২ কার্যদিবসের মধ্যে কারণ দর্শানোর নোটিশ দিয়েছিল প্রক্টরিয়াল কমিটি।

উল্লেখ্য, ব্যবসা প্রশাসন বিভাগের শিক্ষার্থী রিফাত আদনান পাপন বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে দোকান ভাঙচুর ও এক বিদেশি শিক্ষার্থীকে মারধরের অভিযোগে এর আগেও দুই বার বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বহিষ্কার হয়েছিল।

এছাড়াও নিম্নের সংবাদগুলো দেখতে পারেন...

সিলেটে আদালতপাড়া থেকে আসামির পলায়ন নিয়ে তোলপাড়

দুই শ’ পিস ইয়াবাসহ গত মঙ্গলবার র‌্যাব-৯ এর একটি দল আটক করেছিল তাকে। এরপর থানায় …

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Open